চট্টগ্রাম পার্বত্য অঞ্চলকে দখল করতে চায় ভারত

এবার পার্বত্য চট্টগ্রামে ভারতের হস্তক্ষেপ চান : সন্তু লারমা

১৯৭২ সালে গঠিত পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (পিসিজেএসএস) প্রতিষ্ঠাতা সদস্য জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা (সন্ত লারমা) ভারতে এসেছেন কেন্দ্রীয় সরকারের সমর্থন আদায়ের জন্য ।

১৯৯৭ সালের ২ ডিসেম্বর পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় সন্তু লারমার নেতৃত্বে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীগুলো মেনে না নিয়ে সশস্ত্র সংগ্রামে লিপ্ত হয় তার কারণে শান্তি চুক্তি সমাপ্ত করা সম্ভব হয়ে উঠেনি ।

এদিকে সন্তু লারমা বলেছেন জনসংহতি সমিতির নেতা অভিযোগ করেন সরকার চুক্তি বাস্তবায়নে আগ্রহী নয় তিনি বলেন সরকার বিশ্বাস ভঙ্গ করেছে ।

সেই কারণে তিনি পার্বত্য শান্তি চুক্তির সম্পূর্ণরূপে বাস্তবায়নের জন্য এবার তিনি ভিন্ন পথ অবলম্বন করেছেন এবার তিনি ভারতে চিকিৎসা কথা বলে বা চিকিৎসার খাতিরে ভারতে গিয়েছেন এবং এই আড়ালে নয়াদিল্লি উপস্থিত হয় শীগ্রই সহকারী মন্ত্রী ও সরকারের সঙ্গে আলোচনা সম্পন্ন করতে চান ।

সন্তু লারমা মনে করেন তিনি ভারতের সরকারের সমর্থন পাবেন এবং তিনি পার্বত্য চট্টগ্রামকে ভারতের অঙ্গরাজ্য হিসেবে নিয়ে যেতে বলেছেন বা বা ভারতের অঙ্গরাজ্য বানাতে বলেছেন এই পার্বত্য অঞ্চলকে ।

উল্লেখ্য ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তামিলদের আরো স্বায়ত্তশাসনের জন্য দেশটির প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের জন্য যেভাবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করেছে সেভাবে লারমা নয়াদিল্লি কে স্মরণ করিয়ে দিতে চাইছেন যে পার্বত্য চট্টগ্রামে একই ভূমিকা পালন করলে উপকার হবে ।

সন্তু লারমা চাচ্ছেন যে চট্টগ্রাম পার্বত্য অঞ্চল ভারতের অঙ্গরাজ্য হয়ে উঠুক এই অঞ্চলটি বাংলাদেশ থেকে বিচ্ছিন্ন করে ভারতের সাথে মিশে যাক সে জন্য তিনি ভারত সফর করেন এবং ভারতের উচ্চতম মন্ত্রী ও সরকারের সাথে বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন ।

তিনি বাংলাদেশে বসবাস করে বাংলাদেশের অঞ্চলকে ভারতের অঙ্গরাজ্য বানানোর জন্য ভারতে সফর করেছেন এবং তিনি বাংলাদেশ বসবাস করার অযোগ্য হয়ে পড়েছে  বাংলাদেশের এই পার্বত্যাঞ্চলে ভারতের অঙ্গরাজ্য হোক তার জন্য তিনি ভারত সফর করেছেন ভারতের মন্ত্রীদের দ্বারস্থ হয়েছেন ।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *