Mizanur Rahman azhari

মালয়েশিয়াতেও জনপ্রিয় বক্তা মিজানুর রহমান আজহারী কে দেখতে লাখো মানুষের ভিড় বিস্তারিত পড়ুন

বর্তমান সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও আলোচিত বক্তা ডঃ মিজানুর রহমান আজহারী বাংলাদেশে ফেব্রুয়ারি মাসে এক বিজ্ঞপ্তিতে বলেন তার সমস্ত ওয়াজ মাহফিল বন্ধ করে তিনি পারিবারিক কারণে মালয়েশিয়া চলে যাবেন বা চলে যাচ্ছেন তার এই বক্তব্যের কারণে হাজার হাজার মানুষের মনে আঘাত লেগেছে,

তার ওয়াজ ও মাহফিল শুনে হাজার হাজার তরুণ-তরুণী ইসলামের পথে চলে এসেছেন এবং তারা গান-বাজনা ছেড়ে নামাজের পথে এসেছেন খুব অল্প সময়ে তিনি বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় একজন বক্তা হয়ে উঠেছেন এখন মানুষ তার ওয়াজ ও মাহফিল প্রত্যেকটি দোকান ও গাড়িতে ও প্রত্যেকটি মানুষ তাদের কাজের ফাঁকে ফাঁকে শুনে থাকেন কারণ তিনি তার সুন্দর ভাষায় ওয়াজ ও মাহফিল করে থাকেন, তার বাসায় মানুষ কোরআন ও হাদিসের কথা বুঝতে খুব স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন এবং খুব সহজেই বুঝে যান ।

ডঃ মিজানুর রহমান আজহারী তার ফেসবুক পেইজে যখন এই বক্তব্য দিয়েছেন তিনি বলেছেন যে এ বছরের সমস্ত ওয়াজ ও মাহফিল বন্ধ ঘোষণা দেওয়ার পরে তিনি বলেন পারিবারিক কারণে তাকে মালোশিয়া বা গবেষণার ক্ষেত্রে তাকে মালয়েশিয়া যেতে হচ্ছে,

তিনি বলেন আমি মালয়েশিয়া যাচ্ছি রিচার্জের কাজে আল্লাহ তায়ালা যদি আমাকে আবারো সুযোগ করে দেন তাহলে আমি আবার ফিরে আসবো আপনাদের মাঝে এবং আল্লাহর কোরআনের আলোকে আমি আপনাদের মাঝে কোরআনের কথা আবার তুলে ধরবো যাতে সবাই কুরআনের কথা অনুযায়ী ও কোরআনের পথে চলতে পারে ।

এসময় ডঃ মিজানুর আজহারী প্রোগ্রামের উদ্দেশ্যে বলেন যারা আমার প্রোগ্রাম বাস্তবায়নের  করে অনেক কষ্ট করেছেন অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে আমার প্রোগ্রামটি বাস্তবায়ন করেন তাদের প্রতি আমার অনেক অনেক ভালোবাসা ও আন্তরিকতা রইল তাদের কারণে আমার প্রত্যেকটি প্রোগ্রাম বাস্তবায়ন হয়েছে জনগণ এবং পুলিশ প্রশাসন বিশেষ করে জনগণ ও পুলিশ প্রশাসনের প্রতি স্থানীয় প্রতিনিধি জনগণের প্রতিনিধিত্বদের প্রতি আমার ভালোবাসা রইলো,
তাদের সুন্দর ব্যবহার ও প্রোগ্রাম বাস্তবায়নের ফলে আমি তাদের মাঝে কোরআনের আলোকে কথাগুলো বলতে পেরেছি ।

তিনি আরো বলেন এ বছরের বেশিরভাগ প্রোগ্রাম করেছি আমি পরিবার ও সমাজ নিয়ে পরিবার ও সমাজে বিভিন্ন রকম সমস্যা হয়ে থাকে এ সমস্যাগুলো আমি সবার মাঝে কোরআন ও হাদিস অনুযায়ী তুলে ধরেছি যা মানুষ তাদের সমস্যা সমাধানে বেছে নিতে পারবে কোরআন আমাদের শ্রেষ্ঠ কিতাব এই কিতাব অনুযায়ী আমি সবার মাঝে কোরআনের কথা তুলে ধরেছি যে যার সমস্যা সমাধানে এ কিতাবের আলোকে তাদের সমস্যা সমাধান করতে পারবে ।

তিনি আরো বলেন আমার কোরআনের আলোচনা গুলো সবাই পরিবারের মাঝে তুলে ধরবেন এবং পরিবারকে শুনতে সাহায্য করবেন যাতে কোরআনের আলোচনা গুলো পরিবারের সকলের শুনে ইসলামের পথে আসতে পারে এবং তারা আল্লাহর প্রতি অনুগত হতে পারে এবং আমার এই কোরআনের আলোচনা গুলো বাস্তব জীবনে মেনে চলার চেষ্টা করুন তাহলে দেখবেন ধীরে ধীরে আমাদের মাঝে বিভিন্ন রকম সমস্যা গুলো আর সৃষ্টি হবে না এবং আল্লাহ তাআলার অশেষ রহমত আমাদের উপরে বর্ষণ হবে,
আমাদেরকে আল্লাহ তাআলা ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন এবং হেদায়েত দান করবেন সমাজের বিভিন্ন রকম সমস্যা দূর করে দিবেন ইনশাআল্লাহ কোরআনের আলোকে আমাদের জীবন চলবে ও কোরআনের আলোকে আমাদের জীবন গড়ে তুলব তিনি আরো বলেন সবাই ইনশাল্লাহ আমাদের সাথে থাকবেন ।

এবং তিনি শেষে বলেন আমাকে যেভাবে মানুষ ভালোবাসা দিয়েছ আল্লাহর কাছে অশেষ রহমত ও শুকরিয়া আদায় করতেছি, আমি হাজার বছর ধরে শুকরিয়া আদায় করলে ও এই ভালোবাসার শুকরিয়া আদায় শেষ হবে না
কারণ আল্লাহ আমাকে অনেক সম্মান মর্যাদা দিয়েছে হাজার হাজার মানুষ আমাকে অনেক ভালোবাসে আমার বক্তব্য কোরআনের আমার কুরআনের বক্তব্য শুনতে লাখ লাখ মানুষ চলে আসেন তাদের ভালবাসায় আজ আমি খুবই আনন্দিত ।

তিনি আরো বলেন আমি একজন কোরআনে ছাত্র আমি সবসময় কোরআনকে ভালোবাসি কোরআন পড়তে ভালোবাসি কোরআন কথা বলতে ভালোবাসি আমি সবসময় কোরআন নিয়ে থাকি এবং আমার বাকিটা জীবন বা সময় কোরআনের পথে কাটিয়ে দিব আমি কোরআনের দাওয়াত সবাইকে দিব আল্লাহ তাআলা চাইলে আমি সবসময়ই কোরআনের কথা বলব আল্লাহতালা আমাকে কোরআনের পথে কবুল করুক আমি এই দোয়া আল্লাহর কাছে করি ।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *