মুসলমানদের উপর দাঙ্গা ও নির্যাতন বন্ধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এখনই পদক্ষেপ নিতে হবে বলছেন ইমরান খান

মুসলমানদের উপর দাঙ্গা বন্দে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এখনই পদক্ষেপ নিতে হবে : ইমরান খান

ভারতে মুসলমানদের উপর যে অত্যাচার ও নির্যাতন শুরু হয়েছে এই অত্যাচার ও নির্যাতন বন্ধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় কে এখনই পদক্ষেপ নিতে বলেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তিনি বলেছেন ভারতের নয়াদিল্লিতে যে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড সৃষ্টি হয়েছে এবং  মুসলমানদের উপর যেভাবে অত্যাচার সৃষ্টি হয়েছে বা তৈরি করা হয়েছে এতে এখনই আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় পদক্ষেপ না নিলে অনেক দেরি হয়ে যাবে সংখ্যা এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা ২০ জন এবং আহত সংখ্যা দাঁড়িয়েছে প্রায় ২০০ জনের উপরে ।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী তিনি তার টুইটারে পোস্ট করেন যেখানে তিনি বলেন কোনো বর্ণবাদী মতাদর্শ উত্থান ঘটে তখন তা ব্যাপক রক্তপাতের দিক নিয়ে যায় খবর ডন অনলাইনের ।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর জাতিসংঘের ভাষণে তিনি এ রক্তপাত নিয়ে পূর্বাভাস দিয়েছিলেন তিনি বলেছিলেন যে ভারতে মুসলমানদের উপর ব্যাপকভাবে অত্যাচার চালিয়ে যাবেন ভারতের সরকার ভারতের সরকার চায় ভারতে মুসলমানদের কে নির্যাতন করে দেশ ছাড়তে বাধ্য করা তিনি বলেন অধিকৃত কাশ্মীর দিয়ে রক্তপাত শুরু হয়েছে এখন ভারতে মুসলমান হামলার লক্ষ্যবস্তু তিনি বিশ্ব সম্প্রদায় কে এখনই পদক্ষেপ নিতে বলেছেন এবং এই পরিস্থিতি বিশ্ব সম্প্রদায়কে ভাবতে আহ্বান জানিয়েছেন এই পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নিবে এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে অনেক লেট হয়ে যাবে ।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন সংখ্যালঘুদের সমঅধিকার কথা জানিয়েছেন তিনি বলেছেন আমাদের দেশের সকল ধর্মের মানুষ একসাথে নিজ নিজ ধর্ম পালন করতে পারে আমাদের দেশে কাউকে কোন ধর্মে পালন করতে বাধা দেওয়া হয় না,
তিনি আরো বলেন কেউ যদি কোন অমুসলিম কিংবা অন্য কোন ধর্মের মানুষের স্থানে ধর্মের ওপর হামলা চালায় তবে তা কঠোর হাতে দমন করা হবে এবং কঠোর শাস্তির মুখে আনা হবে তিনি বলেন আমাদের দেশের ধর্মনিরপেক্ষতা আছে আমরা সকলেই সকলের ধর্ম স্বাধীনভাবে পালন করতে পারি আমাদের মাঝে ধর্ম নাই আমাদের মাঝে ধর্ম নিয়ে কোন সমস্যা নাই সবাই যার যার ধর্ম নিরাপদ ভাবে  পালন করতে পারে ।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন পাকিস্তানের সংখ্যালঘু- তাদের নিজ নিজ ধর্ম ও সমান অধিকারে ধর্ম পালন করতে পারেন এবং নিরাপদ ভাবে তাদের নিজ নিজ ধর্ম পালন করতে পারেন এবং তারা সমান অধিকার পায় তাদেরকে কোন অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয় না এবং তারা নিরাপদ ভাবে জীবন যাপন করতে পারেন এই কথাথা বলেছেন সাবেক এই ক্রিকেটার ।

তিনি আরো বলেন হিন্দুত্ববাদী বিজিবি সরকার বিতর্কিত নাগরিক আইন পাস করার পর থেকে ভারতে মুসলমানরা ফুঁসে উঠেছে এ আইন বাতিলের দাবিতে নানা কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে ভারতের মুসলমান,
বিভিন্ন সময় ভারতে হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসীরা মুসলমানদের উপর নির্মমভাবে হামলা চালায় এবং মুসলমানদের বাড়িঘর দোকানপাট আগুনে জ্বালিয়ে দেয় হিন্দুত্ববাদী সরকার দলের লোকজন,  সরকার বিতর্কিতভাবে নাগরিক আইন পাশ করার পরে তা আরো তীব্র থেকে তীব্র হয়ে যায় ।

তিনি আরো বলেন যদি কোন মুসলমান এ বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে কর্মসূচি পালন করে বা কর্মসূচিতে নামে তাহলে হিন্দুত্ববাদী সরকার ওই মুসলমানদের অত্যাচার করে এবং তাদেরকে সংঘাত করতে বাধ্য করে রোববার সংঘর্ষ শুরুর পরদিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইন্ডিয়াতে আসেন এবং সেইদিনই সংঘাতের কারণে পুলিশ কনস্টেবলসহ মৃত্যুবরণ করেন চারজন এর কারণ হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসীদের আক্রমণে এবং তাদের অত্যাচারের কারণে প্রায় ১৫ জন লোক প্রাণ হারান ।

বিভিন্ন দেশের বিশ্লেষকরা বলেছেন এই পরিস্থিতি হিন্দুত্ববাদী সরকারকে চাপের মুখে ফেলে দিয়েছেন কেননা ভারতে এই প্রথম আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সফর করেছেন এই সংঘর্ষের কারণে ট্রাম্পের ভারত সফরের খবরটি চাপা পড়ে গেছে  বিশ্বগণমাধ্যমে চাপা পড়ে গেছেন এবং এই পরিস্থিতির কারণে মোদি সরকার  ট্রাম্পের সাথে কোনো কাজে এগিয়ে যেতে পারেননি তাই মনে করেন খুব তাড়াতাড়ি এই বিষয়টি সরকারকে ভাবা উচিত এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা পালন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা উচিত না হলে পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নিবে ।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *